দোকানের সুন্দর নামের তালিকা

দোকানের সুন্দর নামের তালিকা

আপনি কি নতুন দোকান দেওয়ার কথা ভাবছেন? আপনার উত্তর যদি হ্যা হয়ে থাকে তবে আজকের আর্টিকেলটি শুধুমাত্র আপনার জন্যই লেখা হয়েছে। আমাদের আজকের পোষ্টের মধ্যে আমরা তুলে ধরব একটি দোকানের সুন্দর নাম পছন্দ করার জন্য আমাদের কি করা উচিত হবে তা নিয়ে। তাছাড়া সুন্দর নামগুলো আপনি কোথায় থেকে সংগ্রহ করবেন সে বিষয়গুলো তুলে ধরব পোস্টের নিচের দিকে। আপনারা যারা ভাবছেন দোকানের জন্য যে কোন একটি নাম রেখে দিলেই হবে বেশি কিছু ভাবার প্রয়োজন নেই তারা হয়তো বুঝতে পারছেন না দোকানের একটি সুন্দর নাম রাখা কতটা জরুরী।

আপনি যদি দোকানের একটি সুন্দর নাম রাখতে পারেন তবে ক্রেতারা বারবার আপনার দোকানে ভিড় জমাবে। অবশ্য এক্ষেত্রে আপনার দোকানের পণ্যগুলো মানসম্মত হতে হবে এবং ক্রেতার সাথে আপনার সম্পর্ক ভালো থাকতে হবে। তবে সব কিছুর আগে যে জিনিসটা প্রয়োজন হবে তাহলে সুন্দর একটি নাম। দোকান শুরুর সময় আপনি হয়তো বিভিন্ন মানুষের কাছ থেকে বিভিন্ন ধরনের পরামর্শ পাবেন কিন্তু বুদ্ধিমানের মত আপনি কোন পরামর্শটি গ্রহণ করবেন সেটি সম্পূর্ণ নির্ভর করবে আপনার উপর। তাই আপনার আশেপাশের মানুষজন বিভিন্ন নাম রাখার পরামর্শ দিলেও এমনকি নাম রাখতে হবে যে নামটি আপনি নিজে পছন্দ করতে পারবেন। আপনি নিজে পছন্দ করার পর আশেপাশের সবার সাথে বিষয়টি নিয়ে আলোচনা করবেন এবং তাদের মন্তব্য জানতে চাইবেন।

বিষয়টি এমন নয় যে একদিনের মধ্যেই আপনাকে দোকানের নাম পছন্দ করে ফেলতে হবে। ব্যবসা শুরুর আগে বেশ কয়েকদিন সময় নিয়ে দোকানের নাম পছন্দ করার চেষ্টা করুন। দরকার হলে প্রথম কয়েকদিন শুধুমাত্র দোকানের নাম নিয়ে সবার সাথে আলোচনা করুন। তবে নাম রাখার আগে সিদ্ধান্ত নিতে হবে আপনি কি ধরনের নাম রাখতে চাইছেন। আপনি যদি নিজের পরিবারের কোনো মানুষের নামে দোকানের নাম রাখতে চান তবে পরিশ্রম অনেকটা কমে যাবে। আপনার সন্তান অথবা স্ত্রীর নামে কিংবা মায়ের নামে দোকানের নাম রাখতে পারেন।

আবার এই বিষয়টি যদি আপনার কাছে অস্বস্তির হয়ে থাকে তবে এমন একটি নাম সিলেক্ট করতে হবে যে নামটি আপনার পরিবারের সব সদস্য পছন্দ করছে। আপনি যদি ইংরেজিতে দোকানের নাম রাখতে চান তবে এমন একটি ইংরেজি শব্দ বেছে নিতে হবে যার সুন্দর অর্থ রয়েছে। আপনি দোকানে কোন ধরনের পণ্যের ব্যবসা করছেন তার সাথে মিল রেখেই দোকানের নাম পছন্দ করার চেষ্টা করতে হবে। এক্ষেত্রে অবশ্যই পরিবারের বড়দের পরামর্শ নেয়ার চেষ্টা করবেন। 

একটা বিষয় মাথায় রাখবেন যে কোন ভাল কাজ শুরু করতে গেলে পরিবারের গুরুজনদের দোয়া আপনার মনোবল বাড়িয়ে দিতে পারে। আপনি যদি মানসিকভাবে দুর্বল হয়ে থাকেন তবে বড়দের সাপোর্ট পেলে খুব সহজেই মন শক্ত করে কাজ শুরু করতে পারবেন। অপরদিকে বড়দের দোয়া না পেলে অল্প ব্যর্থতায় আপনি অনেক ভেঙে পড়তে পারেন। একটি ব্যবসা দাঁড় করানো মোটেও সহজ কোনো কাজ নয়। ব্যবসা দাঁড় করানোর জন্য অনেক পরিশ্রম ও ধৈর্যের প্রয়োজন হয়। আপনার মধ্যে যদি ধৈর্য ধারণ করার ক্ষমতা থাকে কিন্তু পরিশ্রম করার মানসিকতা না থাকে তবে ব্যবসা দাঁড় করাতে পারবেন না। আবার আপনি যদি অনেক বেশি পরিশ্রম করতে পারেন কিন্তু ধৈর্য ধরতে না পারেন তবে শেষ পর্যন্ত সফল হওয়ার সম্ভাবনা থাকবে খুবই কম।

ব্যবসা শুরু করার পর থেকেই আপনার আশেপাশের মানুষ বন্ধু-বান্ধব আত্মীয়-স্বজন পাড়া-প্রতিবেশীরা জানতে চাইবে দোকানের নাম কি দিয়েছেন। সবার কাছে দোকানের নাম বলতে বলতে আপনি নিজেই এক সময় ক্লান্ত হয়ে পড়বেন। এখান থেকেই বোঝা যায় আপনি যদি দোকানের নামটি এমন ভাবে রাখেন যে নামটি সহজে উচ্চারণ করা যায় না আবার কাউকে সহজে বলাও যায় না তবে আপনি নিজেই একসময় বিরক্ত হয়ে পড়বেন। তাই এমন একটি নাম সিলেক্ট করুন যে নামটি বারবার বলতে ইচ্ছা করবে মনের মধ্যে সবসময় বাজতে থাকবে।

বাংলা অনেক সুন্দর নাম রয়েছে যেগুলো দোকানের নাম হিসেবে ব্যবহার করা যায়। বাংলা নাম গুলো খুব সহজে উচ্চারণ করা যায় এবং এর অর্থ সকলে বুঝতে পারে। দোকানে যেসব ক্রেতারা নিয়মিত আসবে তারা আপনার দোকানের নামেই আপনাকে চিনবে। আপনার দোকানের প্রচার করতে গেলেও বারবার ওই নামটি ঘুরেফিরে আসবে। দোকান শুরু করার সময় আমরা হয়তো ভাবি না দোকানের নামটি কতটা গুরুত্বপূর্ণ কিন্তু আস্তে আস্তে একসময় বোঝা যায় এ বিষয়টি সত্যিই অনেক বেশি গুরুত্বপূর্ণ।

আপনি যদি একটি কাপড়ের দোকান শুরু করেন তবে নাম পছন্দ করার জন্য আপনাকে বেশ কিছু বিষয় মাথায় রাখতে হবে। কাপড়ের দোকান হলে সেটি মহিলাদের কাপড়ের দোকান নাকি পুরুষদের কাপড়ের দোকান অথবা দোকানে মহিলা ও পুরুষদের উভয়ের কাপড় থাকবে কিনা এ বিষয়গুলো মাথায় রেখেই নাম সিলেক্ট করতে হবে। আবার অনেকেই শুধুমাত্র ছোট বাচ্চাদের কাপড়চোপড় দোকানে রাখে তাই এইসব দোকানের এমন একটি নাম রাখতে হবে যেগুলো বাচ্চারা অনেক বেশি পছন্দ করবে। আবার আপনি যদি খাদ্য পণ্যের ব্যবসা করে থাকেন তবে কোন ধরনের খাদ্যপণ্য বিক্রি করবেন তার সাথে মিল রেখেই নাম পছন্দ করতে হবে। আপনি যদি চালের দোকানদার হন তবে উন্নত জাতের ধানের নাম দিয়ে দোকানের নাম রাখতে পারেন। যেমন ধরেন বিখ্যাত একটি ধানের জাত হল বাসমতি। দোকানের নাম যদি বাসমতি রাখেন তবে নিশ্চয়ই মন্দ হবে না।

বাজারে এমন কিছু দোকান থাকে যে দোকানগুলোর নাম আমরা খুব সহজে জানতে চাই না শুধুমাত্র দোকানের মালিকের নাম দিয়েই পুরো এলাকায় দোকানটি পরিচিত হয়। তাই আপনি চাইলে নিজের নাম দিয়েও দোকানের নাম রাখতে পারেন। এক্ষেত্রে সবাই আপনার নামেই দোকানটিকে চিনবে। তবে ভবিষ্যতে যদি আপনার ব্যবসা আরো বড় করার ইচ্ছা থাকে তবে নিজের নাম না দিয়ে সুন্দর একটি নাম সিলেক্ট করা উচিত কারণ আপনি তখন এক একটি ব্যবসার জন্য এক এক রকম নাম পছন্দ করে রাখতে পারবেন।

আপনার প্রতিটি ব্যবসাকে মানুষ তখন আলাদা আলাদা নামে চিনবে। এখন প্রশ্ন হচ্ছে নাম পছন্দ করার জন্য আপনারা নাম কোথায় থেকে সংগ্রহ করবেন। আসলে একসাথে অনেকগুলো নামের তালিকা সংগ্রহ করা মোটেও সহজ কোনো কাজ নয়। এর আগে আমরা বলেছি আপনার দোকানে কি ধরনের পণ্যের ব্যবসা করবেন তার সাথে মিল রেখেই দোকানের নাম রাখতে হবে তাই আগে সিদ্ধান্ত নিয়ে তারপর ওই ক্যাটাগরির নাম গুলো সংগ্রহ করার চেষ্টা করুন। বেশ কিছু নাম একসাথে সংগ্রহ করে নিজে নিজে একটি তালিকা তৈরি করতে পারবেন। প্রয়োজনে নামের তালিকা তৈরি করার দায়িত্ব পরিবারের কাউকে দিতে পারেন।

অনেকেই ইসলামিক নামে দোকানের নাম রাখতে চান। ইসলামিক নামের দোকানের নাম রাখতে চাইলে এমন কোন ব্যক্তির সাথে যোগাযোগ করতে হবে যে এই বিষয়ে অভিজ্ঞ। নামের তালিকা তৈরি করা কি মোটেও কঠিন কোন কাজ হবে না। বর্তমান সময়ে অনলাইনের মাধ্যমে খুঁজলেই বেশ কিছু নাম সংগ্রহ করা সম্ভব। যেহেতু সবকিছুর আগে আপনাকে ঠিক করে রাখতে হবে কোন ধরনের নাম আপনি খুঁজতে চাইছেন তাই এখনই কোন নাম সাজেস্ট করা আমাদের পক্ষে ঠিক হবে না।

আমরা পরের পোস্টগুলোতে আলাদা আলাদা ক্যাটাগরি করে অসংখ্য নামের তালিকা প্রকাশ করার চেষ্টা করব। আমাদের সংগ্রহে বেশ কিছু সুন্দর সুন্দর নাম রয়েছে যেগুলো দোকানের জন্য ব্যবহার করা যায়। আশা করি নিয়মিত আমাদের ওয়েব সাইটে চোখ রাখবেন দোকানের সুন্দর সুন্দর নাম গুলো সংগ্রহ করার জন্য।

Similar Posts

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *