ইসলামিক দোকানের সুন্দর নামের তালিকা

ইসলামিক দোকানের সুন্দর নামের তালিকা

আপনারা যারা নতুন দোকান দেওয়ার কথা ভাবছেন অথবা নতুন দোকান দিয়েছেন কিন্তু সুন্দর কোন নাম খুঁজে পাচ্ছেন না তাদের জন্যই আমাদের আজকের আর্টিকেল। আজকের লেখার মধ্যে আমরা তুলে ধরব কিভাবে একটি সুন্দর নাম চয়েস করবেন এবং একটি নাম সিলেক্ট করতে গেলে আপনাকে কোন বিষয়গুলো মাথায় রাখতে হবে তা নিয়ে। সবকিছুর আগে আপনার জেনে নেওয়া উচিত একটি সুন্দর নাম আপনার দোকানের পরিচিতি কতটুকু বাড়িয়ে দিতে পারে। ব্যবসা-বাণিজ্যের ক্ষেত্রে জনপ্রিয়তা খুব জরুরী একটি বিষয়। আপনি যত বেশি জনপ্রিয় হতে পারবেন আপনার ব্যবসার প্রসার তত বেশি ঘটবে।

অনেক সময় লক্ষ্য করবেন খুব ভেতরে থাকা একটি দোকানেও খুব ভালো ব্যবসা হচ্ছে এর কারণ সেই দোকানের পরিচিতি অনেক বেশি। পরিচিতি বেশি হওয়ায় ক্রেতারা সরাসরি সেই দোকানে গিয়ে উপস্থিত হচ্ছেন। আবার রাস্তার পাশেই একটি দোকান কিন্তু সেখানে ব্যবসা খুব একটা ভালো হচ্ছে না এর কারণ হলো সেই দোকানের তেমন পরিচিতি নেই। খুব জরুরী না হলে ওই দোকানগুলোতে ক্রেতারা যেতে চায় না। চলুন আজকে জেনে নেই দোকানের সুন্দর একটি নাম আপনার ব্যবসার উপর কতটা প্রভাব ফেলতে পারে। সেই সাথে আজ আমরা ইসলামিক সুন্দর নাম নিয়ে আলোচনা করব। দোকানে কোন ইসলামিক নাম গুলো ব্যবহার করতে পারেন সে বিষয়গুলো জেনে নিতে পারবেন। সেই সাথে আপনারা ইসলামিক আনকমন নাম গুলো সংগ্রহ করার প্রক্রিয়া জেনে নিতে পারবেন।

একটি দোকান দিতে গেলে আপনাকে বেশ কিছু বিষয় নিয়ে ভাবতে হবে তার একটি হল দোকানের পজিশন। দোকানের অবস্থান এমন কোন জায়গায় হতে হবে যেখানে ক্রেতারা খুব সহজে আসতে পারবে। তাছাড়াও যে কোন ব্যক্তি আপনাকে দোকানের অবস্থান জিজ্ঞেস করলে আপনি যেন সহজে বলতে পারেন এবং সে যেন সহজে বুঝতে পারে এমনটা হতে হবে। এমন কোন জায়গায় দোকান করা যাবে না যেখানে যেতে ক্রেতাদের সমস্যা হতে পারে। মনে রাখবেন ক্রেতারা সবসময় নিজেদের সুবিধা দেখেই দোকানে আসবে।

তাই চেষ্টা করতে হবে বাজারের এমন কোনো স্থানে দোকান করতে যেখানে ওই এলাকার সব মানুষ যাওয়া আসা করে। এর পাশাপাশি আরও একটি বিষয় আপনাকে মাথায় রাখতে হবে ক্রেতারা যেন আপনার দোকানে যথেষ্ট স্পেস পায়। দোকানে বসার ও দাঁড়িয়ে থাকার যথেষ্ট জায়গা থাকতে হবে। এমনটা না হলে ক্রেতারা দোকানে এসে বিরক্ত হবে। আবার ক্রেতারা ভিড় জমালে তাদেরকে হ্যান্ডেল করার মত স্পেস বিক্রেতা পাবেন না।

এখন দেখা যাক একটি সুন্দর নাম আপনার দোকানের পরিচিতি কতটা বাড়ি দিতে পারে। দোকানের নাম নির্বাচনের ক্ষেত্রে বেশ কিছু সময় নিয়ে ভেবে দেখতে হবে। অনেকগুলো নামের একটি তালিকা তৈরি করে সেই নাম গুলোর মধ্য থেকে একটি সিলেক্ট করতে হবে। নাম সিলেক্ট করার ক্ষেত্রে আপনি আপনার বন্ধুবান্ধব ও পরিবারের সদস্যদের মতামত নিতে পারেন। বন্ধুবান্ধব ও পরিবারের সদস্য ছাড়াও যেকোনো জ্ঞানী মানুষের মতামত নেওয়া দরকার। নামের সঠিক অর্থ জেনে নাম নির্বাচন করতে হবে।

আবার এমন কোন নাম সিলেক্ট করা যাবে না যে নামটি আমরা খুব সহজে উচ্চারণ করতে পারি না। আপনি চাইলে পরিচিত নাম গুলোর মধ্য থেকেই একটি বেছে নিতে পারেন তবে নামটি অবশ্যই শ্রুতি মধুর হতে হবে। এমন নাম যদি আমরা সিলেক্ট করি যে নামটি কেউ উচ্চারণ করতে পারে না তাহলে ওই নামে আপনার দোকান পরিচিত হবে না। এমন পরিস্থিতি হলে দোকানের ভিন্ন কোন নাম ক্রেতাদের মুখে মুখে চলে আসবে। আপনার ব্যবসাটি কোন পণ্যের তার ওপরও নির্ভর করবে দোকানের নাম কেমন হবে। যদি কাপড়ের দোকান হয় তবে একরকম নাম, যদি নিত্য প্রয়োজনীয় জিনিসপত্রের দোকান হয় তবে অন্যরকম নাম দিতে হবে।

আপনারা অনেকেই ইসলামিক সুন্দর নাম জানতে চেয়ে কমেন্ট করেছিলেন। ইসলামিক অনেক সুন্দর সুন্দর নাম আছে যেগুলো আপনারা দোকানের জন্য বেছে নিতে পারেন। ইসলামিক নাম গুলোর বেশিরভাগই আরবি শব্দের তাই এই শব্দের সঠিক অর্থ আগে জেনে নেওয়া দরকার। আবার এমন কোন নাম বেছে নিবেন না যে নামটি কারো মনে আঘাত করতে পারে। মনে রাখতে হবে আপনার দোকানটি কিন্তু একদিনের জন্য নয়। আপনি দীর্ঘদিন এই দোকানটিতে ব্যবসা করবেন তাই এমন নাম সিলেক্ট করতে হবে যে নামটি যুগ যুগ ধরে মানুষের মুখে মুখে থাকবে।

লক্ষ্য করলে দেখবেন বাজারে এমন কিছু দোকান থাকে যেসব দোকানের নামগুলো ওই এলাকার প্রতিটি মানুষ খুব ভালোভাবে জানে এবং ওই দোকানটি কোথায় অবস্থিত তার ছেলে বুড়ো সকলেরই জানা। দোকানের নাম সঠিকভাবে উচ্চারণ করতে না পারলে ক্রেতারা দোকানের মালিকের নামেই দোকানের অবস্থান নিশ্চিত করে। এমনটা হলে দেখা যায় আপনার দেওয়া নামটি কোন কাজেই আসেনা। যে নামটি ব্যবহার করলে তার কোন কাজে আসবে না তাহলে নাম ব্যবহার করা সার্থকতা কোথায় থাকলো।

বর্তমান সময়ে বেশিরভাগ দোকানের নাম ইংরেজিতে ব্যবহার করা হয়। বাংলাদেশের বেশিরভাগ মানুষই ইংরেজি নাম হয়তো খুব একটা বুঝতে পারে না। ইয়ং জেনারেশনের মানুষরা খুব সহজে বুঝতে পারলেও এলাকার মুরুব্বিদের কাছে এই নামগুলো বলা কঠিন হয়ে পড়ে। এমন একটি নাম নির্বাচন করবেন যে নামটি সব বয়সের মানুষ খুব ভালোভাবে বলতে পারে। তাই বাংলা নাম ব্যবহার করা উচিত হবে বলে আমি মনে করি। আপনি যদি একজন ধার্মিক ব্যক্তি হয়ে থাকেন তবে অবশ্যই ইসলামিক নাম ব্যবহার করবেন এবং সেই নামটিও এমন হতে হবে যা সকলেই সহজে বলতে পারবে এবং পড়তে পারবে। আপনার দেওয়া নামটি যদি সহজ ও শ্রুতিমধুর হয়ে থাকে তবে ক্রেতারা নিজেদের মধ্যে আপনার দোকান নিয়ে সহজে আলোচনা করতে পারবে এবং অন্যকে আপনার দোকানের অবস্থান খুব সহজেই চিনিয়ে দিতে পারবে।

একটি নাম সিলেক্ট করার জন্য অনেকগুলো নামের তালিকা কেন প্রয়োজন হবে সে বিষয় নিয়েই এখন কথা বলব। আপনার কাছে যদি পাঁচ থেকে ছয়টি অপশন থাকে তবে আপনি হয়তো সেই পাচ ছয়টি অপশনের মধ্য থেকে একটি সিলেক্ট করতে পারবেন কিন্তু পরে যখন দেখতে পাবেন এই নামটি ছাড়াও আরো অনেক সুন্দর সুন্দর নাম ছিল যেগুলো আপনি সিলেক্ট করতে পারেননি তখন খারাপ লাগা কাজ করবে। আপনার কাছে যদি বেশ কয়েকটি নামের তালিকা থাকে তবে আপনি অনেক খুঁজে খুঁজে একটি সুন্দর নাম বেছে নিতে পারবেন।

অনেকগুলো সুন্দর নামের মধ্যে একটি সিলেক্ট করলে আপনার সিলেক্ট করা নামটি সবচেয়ে সুন্দর হবে। তাই যখন নাম নির্বাচন করবেন তখন একসাথে বেশ কিছু নামের তালিকা নিয়ে বসবেন। এখন আপনারা প্রশ্ন করতে পারেন এই নামের তালিকা কোথায় পাবো। চলুন দেখা যাক কিভাবে আপনি অনেক বেশি নাম সংগ্রহ করে তালিকা করতে পারবেন।

যারা অনেক বেশি বইপত্র পড়ে থাকে তাদের অনেক বেশি শব্দ জানা থাকে। ইসলামিক বই পত্র যারা বেশি পড়ে তাদের ইসলামিক সুন্দর সুন্দর নাম অনেক বেশি জানা থাকে। এমনকি তারা সেইসব নামের সঠিক অর্থ পর্যন্ত খুব ভালোভাবে বলতে পারে। যদি অর্থ জানে না থাকে তবে আপনারা অভিধান ব্যবহার করতে পারেন। যদি নামের অর্থগুলো আপনাদের পছন্দ হয় তবে সেই নামটি আপনার করা তালিকার মধ্যে তুলে ফেলুন। এভাবে বেশ কিছু নামের তালিকা তৈরি হলে আপনার বন্ধু-বান্ধব ও পরিবারের সদস্যদের তালিকাটি দেখান।।

তালিকা দেখার পর সকলে মিলে সিদ্ধান্ত নিন কোন নামটি আপনার দোকানের জন্য পারফেক্ট হবে। এভাবেই খুব সহজে দোকানের জন্য সুন্দর ও ইসলামিক নাম সিলেক্ট করা সম্ভব। আপনারা যদি সুন্দর সুন্দর দোকানের নামের তালিকা পেতে চান তবে চোখ রাখুন আমাদের পোস্টগুলোতে।

Similar Posts

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *